গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে প্লট ও ফ্ল্যাট ভাগাভাগিতে ‘সচিব-চেয়ারম্যান’ কোটা

নজিরবিহীন ঘটনা ঘটেছে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষে। সরকারি প্লট ও ফ্ল্যাট বরাদ্দে শীর্ষ কর্মকর্তারা নিজেরাই নিজেদের নামে কোটা চালু করেছেন সেখানে। নাম দেওয়া হয়েছে ‘সচিব কোটা’ ও ‘চেয়ারম্যান কোটা’। এসব কোটায় গত কয়েক মাসে অর্ধশত প্লট-ফ্ল্যাট বিলি-বণ্টনও হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন খোদ পূর্ত মন্ত্রণালয় ও জাগৃকের কর্মকর্তারা। বিশেষজ্ঞরাও বলছেন, এ ধরনের কোটা চালু করার আইনগত কোনো ভিত্তি নেই।

রাজধানীসহ সারা দেশে সরকারিভাবে মানুষের আবাসনব্যবস্থা নিশ্চিতে কাজ করে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়। এ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন প্লট ও ফ্ল্যাট প্রকল্প বাস্তবায়ন করে থাকে জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ (জাগৃক), রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষসহ (রাজউক) কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। সেসব প্রকল্পে প্লট বা ফ্ল্যাট বরাদ্দের ক্ষেত্রে আইনসিদ্ধভাবে কোটা নির্দিষ্ট করা আছে। সরকারের পক্ষে মন্ত্রী এসব কোটা সংরক্ষণ করেন। যুগের পর যুগ ধরে এভাবেই চলে আসছে। কিন্তু এবারই প্রথম এর ব্যত্যয় ঘটিয়ে ‘সচিব কোটা’ ও ‘চেয়ারম্যান কোটা’ চালু করল জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ।

বিস্তারিত পড়ুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top