লিঙ্গ বৈচিত্র্য নিয়ে তারা আছেন, তারপরও কেন বিভ্রান্তি

জন্মের পর থেকেই শিয়াব (ছদ্মনাম) পরিচয়ে বড় হতে থাকা ছেলেটি নিজের পরিচয় খুঁজে পান ‘ট্রিয়ানা’ নামে। শারীরিকভাবে ছেলেদের মত হলেও নিজেকে পুরোপুরি একজন নারী ভাবেন ট্রিয়ানা।

আমাদের আশপাশে ট্রিয়ানার মত আরও অনেকেই আছেন। কেউ কেউ হয়ত আমাদের ঘনিষ্ঠজনও। কিন্তু তারপরও লিঙ্গ পরিচয় নিয়ে তর্ক-বিতর্ক, বিভ্রান্তির যেন শেষ নেই। 

সম্প্রতি নতুন করে সেই বিতর্ক আবারও সামনে এসেছে, যার শুরু ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের স্কুলের পাঠ্যবই ছেঁড়ার ঘটনায়।

ওই শিক্ষক প্রকাশ্য অনুষ্ঠানে সপ্তম শ্রেণির ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান বইয়ের ‘শরীফার গল্প’ নামের একটি সচেতনতামূলক পাঠ ছিঁড়ে ‘প্রতিবাদ’ জানিয়েছেন। ওই পাঠে রয়েছে ‘হিজড়া ও তৃতীয় লিঙ্গের’ মানুষদের জীবনের কথা। কিন্তু শিক্ষক আসিফ মাহতাবের দাবি, পাঠ্যবইয়ে ‘ট্রান্সজেন্ডারের গল্প’ ঢুকিয়ে ‘সমকামিতাকে’ উসকে দেওয়া হচ্ছে।

নারী ও পুরুষ অর্থাৎ সিসজেন্ডার বা বাইনারি জেন্ডারের বাইরেও ট্রান্সজেন্ডার, ইন্টারসেক্স, নন বাইনারি জেন্ডারের মত আরো অনেক লিঙ্গ পরিচয় রয়েছে। আবার সেক্সুয়াল ওরিয়েন্টেশন বা আকর্ষণ অনুভবের বিষয়টিও আধুনিক বিশ্বে গুরুত্ব পাচ্ছে।

বিস্তারিত পড়ুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top