শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ দমনে সহিংস না হওয়ার তাগিদ অ্যামনেস্টির

শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারীদের দমনে সহিংস পন্থা অবলম্বন না করার জন্য বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ফের তাগিদ দিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

১০ আগস্ট বৃহস্পতিবার লন্ডনভিত্তিক আন্তর্জাতিক এই মানবাধিকার সংগঠনটি গত ২৯ জুলাই বিরোধী বিএনপির ঢাকার প্রবেশপথগুলোয় অবস্থান কর্মসূচিতে পুলিশের বিভিন্ন তৎপরতার ভিডিও যুক্ত করে এক টুইট বার্তায় এই তাগিদ দেয়।

টুইটের একটি ভিডিওতে দেখা যায়, বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় রাস্তায় পড়ে যাওয়ার পরও পুলিশ তাঁকে পেটাচ্ছে।

এর আগেও একই ধরনের তাগিদ দেওয়ার বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দিয়ে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, প্রতিবাদের অধিকার মানুষের মৌলিক অধিকার। কর্তৃপক্ষের উচিত কোনো অবাঞ্ছিত হস্তক্ষেপ ছাড়া এই অধিকার চর্চায় সহযোগিতা করা। সংগঠনটি এর আগে ৪ ও ৮ আগস্ট অনুরূপ বিবৃতি দেয়।

৪ আগস্ট অ্যামনেস্টি বলে, বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই বিক্ষোভকারীদের ওপর অতিরিক্ত বল প্রয়োগ বন্ধ করতে হবে। প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে অ্যামনেস্টি জানায়, পুলিশ হামলা করার আগপর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবেই বিক্ষোভ চলছিল।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের অন্তর্বর্তীকালীন দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক আঞ্চলিক পরিচালক স্মৃতি সিংহ বলেন, ‘অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল যেসব ভিডিও ও ছবি যাচাই করেছে, সেগুলোতে বাংলাদেশি কর্তৃপক্ষের মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয় ফুটে উঠেছে। আমরা বাংলাদেশের সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই, আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো যেন কঠোরভাবে আইন মেনে চলে এবং নাগরিকদের বাক্‌স্বাধীনতা ও শান্তিপূর্ণ সভা-সমাবেশের প্রতি সম্মান জানায়। মানুষের ক্ষতি এড়াতে এবং সংকট যেন ত্বরান্বিত না হয়, সে কারণেই এটা করা দরকার।’

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top