ধারাবাহিক কমছে ভারতের অনুদান

তিন অর্থবছর ধরে ভারতের কাছ থেকে পাওয়া বাংলাদেশের অনুদানের পরিমাণ ধারাবাহিকভাবে কমছে। এই সময়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আওতায় সরকারিভাবে কোনো ঋণ পায়নি বাংলাদেশ, যদিও দেশটির দেওয়া লাইন অব ক্রেডিটের আওতায় ঋণ পাওয়া অব্যাহত রয়েছে।

ভারতে গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় বাজেট পেশ করা হয়েছে। সেই বাজেট নথিতে উল্লেখ করা ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রকৃত হিসাব অনুসারে, ভারতের কাছ থেকে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কম অনুদান পেয়েছে শ্রীলঙ্কা। এর পরের স্থানেই আছে বাংলাদেশ, অর্থাৎ তালিকায় নিচের দিক থেকে দ্বিতীয়।

ভারতের সরকারি নথির তথ্যানুসারে, ২০২২-২৩ অর্থবছরে বাংলাদেশকে ভারত অনুদান দিয়েছে ১৩৩ দশমিক ৮৮ কোটি রুপি। পরের অর্থবছরে অর্থাৎ ২০২৩-২৪ অর্থবছরের সংশোধিত আনুমানিক হিসাব অনুসারে বাংলাদেশের পাওয়ার কথা ১৩০ কোটি রুপি, অর্থাৎ আগের অর্থবছরের চেয়ে প্রায় চার কোটি রুপি কম। আর ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে বিভিন্ন দেশের জন্য ঋণ ও অনুদানের জন্য যে বরাদ্দ রাখা হয়েছে, তাতে বাংলাদেশকে প্রদেয় অনুদানের পরিমাণ আরও কমে ১২০ কোটি রুপিতে দাঁড়িয়েছে।

বিস্তারিত পড়ুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top