কখন হাঁটবেন, কীভাবে আরেকটু বেশি হাঁটবেন, হাঁটতে গিয়ে যে ভুলগুলো করবেন না

পৃথিবীতে যত প্রচলিত ব্যায়াম আছে, এর ভেতর সবচেয়ে জনপ্রিয়, আর খুবই উপকারী হলো হাঁটা। শারীরিক ও মানসিক সুস্থতার জন্য হাঁটার বিকল্প নেই। নিয়মিত হাঁটার ফলে হৃৎযন্ত্র ও ফুসফুসের কর্মক্ষমতা বাড়ে, মন ভালো থাকে, মন সতেজ হয়, মেদ কমায়, ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণ করে, ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে, ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়। জেনে নেওয়া যাক, কখন হাঁটবেন, কীভাবে আরেকটু বেশি হাঁটবেন, হাঁটতে গিয়ে যে ভুলগুলো করবেন না—

কখন হাঁটবেন?


সকাল বা সন্ধ্যা—দুই সময়েই হাঁটারই সুফল আছে। আপনার সুবিধা মতো সময়ে আপনি হাঁটবেন। সবচেয়ে ভালো হয়, যদি দুই সময়েই হাঁটতে পারেন।


১. সকালে হাঁটলে সারাটা দিন আপনার ‘এনার্জিটিক’ যাবে। সহজে ক্লান্তি ভর করবে না। সকালের ফ্রেশনেস থেকে তাই নিজেকে বঞ্চিত না করাই ভালো। সকালে যাঁরা হাঁটেন, তাঁদের জন্য পরিষ্কারভাবে চিন্তা করা, সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ সহজ হয়।

বিস্তারিত পড়ুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top